ঢাকা, ৭ই আষাঢ়, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ
shodagor.com

উন্নয়নের নামে ঢাকার সমস্যা গ্রামে নিতে চাই না

প্রকাশিত: সোমবার, জুন ৭, ২০২১ ১১:৩৫ পূর্বাহ্ণ  

| পিবিএন ডেস্ক

গ্রামে শহরের সুযোগ-সুবিধা পৌঁছে দিতে গিয়ে শহরের মতো গ্রামেও যেন জনদুর্ভোগ তৈরি না হয় সেদিকে লক্ষ্য রেখে ‘আমার গ্রাম, আমার শহর দর্শন’ বাস্তবায়ন করা হবে। মাস্টার প্ল্যান শুধু নেওয়ার জন্য নয়, যৌক্তিক কারণ এবং ভবিষ্যৎ পরিকল্পনা নিয়ে করতে হবে। যেকোনো জায়গায় বাসা-বাড়ি, দোকানপাট, কিন্ডারগার্টেন স্কুল, ক্লাব, মাদ্রাসা ও কবরস্থান হলে দেশকে পরিকল্পিতভাবে গড়ে তোলা সম্ভব হবে না বলে মন্তব্য করেছেন স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রী মোঃ তাজুল ইসলাম।

রবিবার (৬ জুন,) স্থানীয় সরকার বিভাগ কর্তৃক অনলাইনে আয়োজিত ‘আমার গ্রাম, আমার শহর’ বাস্তবায়ন অগ্রগতি পর্যালোচনায় আন্তঃমন্ত্রণালয় সভায় সভাপতির বক্তব্যে তিনি একথা বলেন।

মন্ত্রী বলেন, শহরে যেসব সমস্যা জনদুর্ভোগ সৃষ্টি করে সেগুলোকে বিবেচনায় নিয়ে গ্রামকে শহরে রুপান্তরিত করতে হবে। রাজধানীসহ দেশের বড় বড় নগরে অবৈধভাবে জায়গা দখল করে অবকাঠামো নির্মাণের ফলে অপরিকল্পিতভাবে বসতি গড়ে উঠেছে। পর্যাপ্ত রাস্তা, খোলা জায়গা, ড্রেনেজ ব্যবস্থা ও অন্যান্য নাগরিক সেবা নিশ্চিত না করে গড়ে উঠেছে নগরী। শহরের নাগরিকরা যে অসুবিধা ভোগ করে সেগুলো যেন গ্রামে না থাকে সেদিকে খেয়াল রাখতে হবে।

shodagor.com

শহরের নানান নাগরিক সমস্যা এবং অবৈধভাবে দখল হওয়া খাল ও জলাশয় পুনরুদ্ধারে সরকার নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছে বলেও জানান মন্ত্রী।

তাজুল ইসলাম বলেন, আমার গ্রাম, আমার শহর কারিগরি সহায়তা শীর্ষক একটি প্রকল্প নেওয়া হয়েছে। এই প্রকল্পের পরামর্শক ও সহায়ক কর্মচারীর জন্য একটি অফিস স্থাপন করা হয়েছে। প্রস্তাবিত কারিগরি সহায়তা প্রকল্পের মাধ্যমে পাইলট হিসেবে ১৫টি গ্রাম নির্বাচনের কাজ চলছে।

সভায় স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় প্রতিমন্ত্রী স্বপন ভট্টাচার্য্য, স্থানীয় সরকার বিভাগের সিনিয়র সচিবসহ সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিব/সচিব, এলজিইডি ও ডিপিএসই-এর প্রধান প্রকৌশলী এবং প্রতিনিধিগণ অংশ নেন।

বিনোদন, লাইফস্টাইল, তথ্যপ্রযুক্তি, ভ্রমণ, তারুণ্য, ক্যাম্পাস ও মতামত কলামে লিখতে পারেন আপনিও – pbn.news24@gmail.com ইমেইল করুন  

সর্বশেষ

জনপ্রিয় সংবাদ