১০ই আগস্ট, ২০২০ ইং, সোমবার

কুষ্টিয়ায় ২৫ বছর পরও মরদেহ অক্ষত

আপডেট: জুলাই ২৫, ২০২০

| নিজস্ব প্রতিবেদক

কুষ্টিয়ার কুমারখালীতে বাড়ি করার জন্য মাটি কাঁটতে গিয়ে দাফনের ২৫ বছর পরে অক্ষত অবস্থায় নিহত নূরুজ্জামান নামে এক ব্যক্তির মরদেহ উদ্ধার করেছে স্থানীয়রা।

শুক্রবার (২৪ জুলাই) বিকেলে উপজেলার যদুবয়বা ইউনিয়নের বহলবাড়িয়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটেছে। নিহত নূরুজ্জামান ওই গ্রামের মৃত মনোহর মিস্ত্রির ব্যবসায়ী ছেলে ছিলেন।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, বহলবাড়িয়া গ্রামের আতর আলীর ছেলের নতুন বাড়ি বানানোর জন্য মাটি খুঁড়তে গিয়ে এক মরদেহ দেখতে পাই শ্রমিকরা। পরে স্থানীয়রা সবাই এসে মরদেহ শনাক্ত করে এবং সন্ধ্যায় বহলবাড়িয়া কবরস্থানে পুনরায় দাফন করা হয়।

মরদেহ শনাক্ত করে নিহতের মামাতো ভাই সানোয়ার বলেন, নুরুজ্জামান একজন সৎ কাপড়ের ব্যবসায়ী ছিলেন। প্রায় ২৫ বছর আগে ঢাকা থেকে বাড়ি ফেরারপথে ডাকাতদল তাকে ধরে কুমারখালী গড়াই নদীর পাড়ে মুখের মধ্যে বিষাক্ত পলিথিন ও গামছা দিয়ে অজ্ঞান করে মালামাল লুট করে ফেলে দিয়ে চলে যায়। পরবর্তীতে খোঁজাখুজির পরে নদীর পাড় থেকে উদ্ধার করে প্রায় এক মাস পরে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা গেলে বাড়ির পাশের বাগানে দাফন করা হয়েছিল। আজ নিহতের চাচাতো ভাই বাড়ি করার জন্য মাটি খুঁড়তে গেলে পুনরায় মরদেহটি অক্ষত অবস্থায় পাওয়া যায়।

এই বিষয়ে চৌরঙ্গী তদন্তের কেন্দ্রের ইনচার্জ ইন্সপেক্টর রাকিব হাসান জানান, মাটি খুঁড়তে গিয়ে ২৫ বছরের পুরানো নুরুজ্জামান নামে এক ব্যক্তির মরদেহ উদ্ধার করে পুনরায় দাফন করেছে স্থানীয়রা।