ঢাকা, ৭ই আষাঢ়, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ
shodagor.com

ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটিতে হাল্ট প্রাইজের তৃতীয় ইনফো সেশন অনুষ্ঠিত

প্রকাশিত: রবিবার, নভেম্বর ২৯, ২০২০ ১০:৫৪ অপরাহ্ণ  

| ডেস্ক ইডিটর, রনি

ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটিতে ‘শিক্ষার্থীদের নোবেল প্রাইজ’ খ্যাত হাল্ট প্রাইজ প্রতিযোগিতার রেজিস্ট্রেশন চলছে, যা চলবে আগামী ৪ ই ডিসেম্বর ২০২০ পর্যন্ত। প্রতি বছরের মতো এবারও বেশ জমজমাট ভাবে এই প্রতিযোগিতা আয়োজনে বিশ্ববিদ্যালয় এর হাল্ট প্রাইজ আয়োজক কমিটি কাজ করে যাচ্ছে।

এই বছরও বিগত কয়েক বছরের মত ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটিতে হাল্টের ক্যাম্পাসভিত্তিক প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হচ্ছে। করোনা পরিস্থিতিতে যেহেতু ক্যাম্পাস বন্ধ তাই অনলাইন ভিত্তিক বিভিন্ন সেশন পরিচালনা করা হচ্ছে।

গত ২৯ ই নভেম্বর, ২০২০ হাল্ট প্রাইজের তৃতীয় ইনফো-সেশন অনুষ্ঠিত হয়েছে। যেখানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বিশ্ববিদ্যালয়ের স্থায়ী ক্যাম্পাসের লিডার মো: নাহিদুল ইসলাম এবং উওরা ক্যাম্পাসের লিডার সাবাকুন নাহার নিশি।সেশন চলাকালীন সময়ে সেশনের একটি বিশেষ আকর্ষণ নিয়ে হাজির হয়েছিলেন ক্যাম্পাস পরিচালক শাখাওয়াত উল্লাহ বাঁধন। ক্যাম্পাস পরিচালক এর সেই আকর্ষণ সম্পর্কে জানতে, নিচের লিংক এ ক্লিক করুন।
https://www.facebook.com/Hultatdiu/videos/381121619839042/

shodagor.com

সম্পূর্ন সেশনটির আলোচনার বিষয় ছিল হাল্ট প্রাইজে রেজিস্ট্রেশন নিয়ে শিক্ষার্থীদেরকে উদ্বুদ্ধ করা, অংশগ্রহণের বিভিন্ন উপকারীতা, বিভিন্ন সুযোগ- সুবিধা ব্যক্ত করা এবং বিজয়ীদের পুরস্কারের সম্পর্কে। সেশনের শেষে শিক্ষার্থীদের থেকে হাল্ট প্রাইজ সম্পর্কিত বিভিন্ন ধরনের প্রশ্নের সমাধান করা হয়েছে। এর মাধ্যমে শিক্ষার্থীরা তাদের অজানা তথ্যগুলো সম্পর্কে অবগত হয়েছে।

হাল্ট প্রাইজ নিয়ে পরিকল্পনা জানতে চাইলে বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্যাম্পাস ডিরেক্টর সাখাওয়াত উল্লাহ্‌ বাঁধন বলেন, ‘আমরা চাই এই প্রতিযোগিতার মধ্য দিয়ে আমাদের শিক্ষার্থীরা কিভাবে একটি সফল ব্যবসা দাঁড় করাতে হয় তা শিখুক। এই প্রচেষ্টার মাধ্যমে আমরা যদি মাত্র পাঁচটি সফল ব্যবসা ও তুলে আনতে পারি তাই হবে আমাদের অন্যতম সাফল্য’।

স্থায়ী ক্যাম্পাস লিডার মো: নাহিদুল ইসলাম বলেন, ” এবারের হাল্ট প্রাইজে অংশগ্রহণকারীদের জন্য থাকছে বিশেষ কর্মশালা, যার মাধ্যমে তারা নিজেদের দক্ষতা গুলোকে আরো শক্তিশালী করার সুযোগ পাবে।এমনকি শিক্ষার্থীরা তাদের বিজনেস আইডিয়াগুলোকে পরিপূর্ণরুপ দিতে সক্ষম হবে”।

এই নিয়ে উত্তরা ক্যাম্পাস লিডার সাবাকুন নাহার নিশি আরো বলেন,” শিক্ষার্থীদের জীবনে আমূল পরিবর্তন এনে দিতে পারে হাল্ট প্রাইজ। আর এজন্য কোনো ধরনের দ্বিধায় না থেকে অংশগ্রহণ করতে হবে “।

এই বছরের হাল্ট প্রাইজ আয়োজন করেছে ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল বিশ্ববিদ্যালয়ের ডিপার্টমেন্ট অব ইনোভেশন এন্ড এন্টারপ্রেনারশীপ এবং নেট ইম্প্যাক্ট।

উল্লেখ্য, হাল্ট প্রাইজকে শিক্ষার্থীদের নোবেল প্রাইজ বলা হয়ে থাকে। যার নামকরণ করেন বাংলাদেশী নোবেল বিজয়ী ড. মোহাম্মদ ইউনুস। ২০১০ সাল থেকে জাতিসংঘ ও বিল ক্লিনটন ফাউন্ডেশনের যৌথ উদ্যোগে প্রতিযোগিতাটি নিয়মিত হয়ে আসছে।

বিনোদন, লাইফস্টাইল, তথ্যপ্রযুক্তি, ভ্রমণ, তারুণ্য, ক্যাম্পাস ও মতামত কলামে লিখতে পারেন আপনিও – pbn.news24@gmail.com ইমেইল করুন  

সর্বশেষ

জনপ্রিয় সংবাদ