ঢাকা, ৫ই মাঘ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ
shodagor.com

তিন বিষয়ে অকৃতকার্য শিক্ষার্থীদের পরবর্তী বর্ষে প্রোমোশনের জন্য আন্দোলন

প্রকাশিত: মঙ্গলবার, জানুয়ারি ১২, ২০২১ ৪:০৯ অপরাহ্ণ  

| ডেস্ক ইডিটর, বর্ণা

ফারহান আহমেদ, কেএনজিসি প্রতিনিধিঃ ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অধিভুক্ত সরকারি সাত কলেজের ২০১৭-১৮ এবং ২০১৮-১৯ বর্ষের শিক্ষার্থীরা ৩(তিন) বিষয় পর্যন্ত অকৃতকার্যদের পরবর্তী বর্ষে উঠানোর জন্য কবি নজরুল সরকারি কলেজে প্রশাসনিক ভবনের নিচে আন্দোলন করছে সাত কলেজ শিক্ষার্থীরা।

মঙ্গলবার (১২ জানুযারী) সকাল ১১টায় সরকারি সাত কলেজের সমন্বয়ক ও কবি নজরুল সরকারি কলেজের অধ্যক্ষ অধ্যাপক আই কে সেলিম উল্লাহ খোন্দকারের প্রশাসনিক ভবনের নিচে গেট অবরুদ্ধ করে বিক্ষোভ কর্মসূচি পালন করেন সাত কলেজ শিক্ষার্থীরা।

প্রথম ও দ্বিতীয় বর্ষে তিন বিষয়ে অকৃতকার্য শিক্ষার্থীরা বলেন, প্রকাশিত ফলাফলে সাত কলেজের ২০১৭-১৮ ও ২০১৮-১৯ শিক্ষাবর্ষের সব বিভাগের অধিকাংশই তিন বিষয়ে অকৃতকার্য। করোনাকালে জীবনের তিন বছর নষ্ট হওয়ার সম্মুখীন এই শিক্ষার্থীদের পরবর্তী বর্ষে উত্তীর্ণ করে বাধিত করবেন কর্তৃপক্ষ। এ বিষয়ে পূর্বে সাত কলেজের শিক্ষার্থীরা তাদের নিজ নিজ অধ্যক্ষকে স্মারক লিপি দিয়েছেন। কিন্তু তাতে আশানুরূপ কোন ফল পাওয়া যায়নি।

shodagor.com

আমরা এই তিন বিষয় অকৃতকার্যের ব্যাপারে নিজ কলেজের অধ্যক্ষের সাথে যোগাযোগ করলে বলে সাত কলেজের সমন্বয়কের সাথে যোগাযোগ করতে। আবার সাত কলেজের সমন্বয়ক সাথে যোগাযোগ করলে বলে নিজ কলেজে অধ্যক্ষের সাথে যোগাযোগ করতে। আমাদের জীবন নিয়ে খেলার অধিকার তাদের নেই।

ইডেন মহিলা কলেজের শিক্ষার্থী ইতি খাতুন জানান, খাতার যথাযথ মূল্যায়ন না হওয়ায় আমরা গণহারে অকৃতকার্য হয়েছি। আমরা যদি এ বছর ৩য় বর্ষে উঠতে না পারি হয়তো আমাদের শিক্ষা জীবন এখানেই শেষ হয়ে যাবে। আমাদের জন্য বিশেষ বিবেচনা করা হোক।অন্তত ৩টি বিষয় পর্যন্ত উর্ত্তীণ করা হোক এটাই আমাদের চাওয়া।

ঢাকা কলেজের শিক্ষার্থী শাহারিয়া মাহমুদ বলেন, রক্ত ছাড়া কোনো আন্দোলন সফল হয়নি। প্রয়োজনে হলে আমরা রক্ত দিতে প্রস্তুত। কিন্তু আমাদের শিক্ষা জীবন নিয়ে খেলতে দেবো না।

এ বিষয়ে সাত কলেজ শিক্ষার্থীদের নেতৃত্বে থাকা তিতুমীর কলেজের শিক্ষার্থী এনামুল হাসান (অভি) বলেন, সাত কলেজের সমন্বয়ক ও কবি নজরুল সরকারি কলেজের অধ্যক্ষ অধ্যাপক আই কে সেলিম উল্লাহ খোন্দকার স্যারের সাথে যোগাযোগ করেছি। তিনি আমাদের বলছেন এ বিষয়ে ঢাবির পরবর্তী মিটিং আলোচনা হবে। আমরা এই তিন বিষয়ে অকৃতকার্য বিষয়টি তুলে ধরব। আমরা স্যারের আশ্বাসে আমরা সাত দিন দেখবো। তারপর সাত দিন পরে শিক্ষার্থীরা দুর্বার আন্দোলন গড়ে তুলবে।

বিনোদন, লাইফস্টাইল, তথ্যপ্রযুক্তি, ভ্রমণ, তারুণ্য, ক্যাম্পাস ও মতামত কলামে লিখতে পারেন আপনিও – [email protected] ইমেইল করুন  

সর্বশেষ

জনপ্রিয় সংবাদ