ঢাকা, ৫ই মাঘ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ
shodagor.com

তোফায়েল আহমেদের মুখে সেদিনের স্মৃতিকথা শুনলেন হাজারো মানুষ

প্রকাশিত: সোমবার, জানুয়ারি ১১, ২০২১ ৭:৫০ পূর্বাহ্ণ  

| পান্থ রহমান, ভোলা জেলা প্রতিনিধি

রোববার সকাল ১১ টার দিকে ভোলা সরকারি উচ্চবিদ্যালয়ের বিশাল মাঠে দলে দলে লোকজন জমায়েত হচ্ছে। মাইকে বাজছে দেশাত্মবোধক ও স্বাধীনতার গান। প্রতিটি মিছিলে ঢোল-ডাগর, ব্যান্ড পার্টি। কোনো কোনো মিছিলের সামনে চলছে লাঠি খেলা।

সবার কপালে লাল ফিতা আর মুখে আনন্দ-স্লোগান। উপলক্ষটা ছিল জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস।

এই দিবস উপলক্ষে ভোলা সরকারি উচ্চবিদ্যালয় মাঠে জড়ো হয়েছিলেন কয়েক হাজার মানুষ। ‘নতুন স্বাভাবিক’ সময়ের এই জনসভায় ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে যুক্ত হয়ে স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবসের স্মৃতিকথা তুলে ধরেন আওয়ামী লীগের উপদেষ্টামণ্ডলীর সদস্য, ভোলা-১ আসনের সাংসদ ও সাবেক বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ।

shodagor.com

ভোলায় করোনাকালে এই প্রথম কোনো জনসভায় এত মানুষের উপস্থিতি লক্ষ করা যায়। সদর উপজেলার ১৩টি ইউনিয়ন থেকে মানুষ এ সভায় আসেন।

সাংসদ তোফায়েল আহমেদ বলেন, ১০ জানুয়ারি চিরস্মরণীয়। অনন্য ঐতিহাসিক দিন। ১৯৭২ সালের এই দিনে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান স্বদেশে প্রত্যাবর্তন করেছেন। এ প্রত্যাবর্তনে বাংলাদেশের মানুষ বিজয়ের পরিপূর্ণতা অর্জন করেছে। ১৬ ডিসেম্বর বাংলাদেশ হানাদারমুক্ত হয়। কিন্তু বাংলাদেশিরা স্বাধীনতার স্বাদ ভোগ করতে পারেনি। যেদিন বঙ্গবন্ধু ফিরে এলেন, সেদিনই স্বাধীনতার পূর্ণতা লাভ করেছে।

১৯৭২ সালের ১০ জানুয়ারির বর্ণনা দিতে গিয়ে তোফায়েল আহমেদ বলেন, বঙ্গবন্ধুর স্বদেশ প্রত্যাবর্তন ছিল এক অবিস্মরণীয় দিন। যখন বাংলাদেশের মাটিতে পা দেন, তখন ছিল অভূতপূর্ব মুহূর্ত-ক্ষণ। মুক্ত দেশের নাগরিকদের উচ্ছ্বাস দেখে বঙ্গবন্ধুর চোখে সেদিন বিজয়ী বীরের পরিতৃপ্তির হাসি ফুটেছিল।

বিনোদন, লাইফস্টাইল, তথ্যপ্রযুক্তি, ভ্রমণ, তারুণ্য, ক্যাম্পাস ও মতামত কলামে লিখতে পারেন আপনিও – [email protected] ইমেইল করুন  

সর্বশেষ

জনপ্রিয় সংবাদ