১৬ই আগস্ট, ২০২০ ইং, রবিবার

‘রামমন্দির উদ্বোধন হবে অশুভ’, আবারও বাঁধার মুখে নির্মাণ

আপডেট: জুলাই ২৪, ২০২০

| পিবিএন ডেস্ক

বহু বিতর্কের পর অযোধ্যায় রাম মন্দির তৈরির স্বপ্ন পূরণ করতে চলেছে বিজেপি। কিন্তু আবারও মন্দির নির্মাণে বাঁধা পড়ল। এবার সামনে এসে দাঁড়িয়েছে খোদ রাম ভক্ত। শুধু রাম ভক্ত না, তিনি হলেন শঙ্কারাচার্য স্বরূপানন্দ সরস্বতী মহারাজ।

এর আগে হাইকোর্টের বিতর্কিত রায়ের পর, করোনা ভাইরাসের কারণে স্থগিত হয় মন্দির তৈরির কাজ। তবে লকডাউন শিথিলের পর আগামী ৫ অগাস্ট অযোধ্যায় ভূমিপুজোর মধ্য দিয়ে মন্দির তৈরির কাজ শুরু হবে বলে ঘোষণা হয়েছে।

তবে এই ভূমিপুজো করার বিপক্ষে কথা বললেন শঙ্করাচার্য সরস্বতী। তিনি জানিয়েছেন, যে রাম মন্দিরের নির্মাণ কাজ সঠিক সময়ে শুরু হওয়ার দরকার ছিল।

অযোধ্যায় মন্দির নির্মাণের জন্য ভূমিপুজোর তারিখ রামলালা ট্রাস্ট নির্ধারণ করেছে এবং প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকে আমন্ত্রণও জানানো হয়েছে। কিন্তু সেই সময়কেই অশুভ বললেন শঙ্করাচার্য। তিনি বলেন, ‘‌আমরা কোনও স্থান চাই না বা রাম মন্দিরের ট্রাস্টিও হতে চাই না।

আমরা শুধু চাই মন্দির সঠিকভাবে নির্মাণ হোক ও মন্দিরের ভিত্তি প্রস্তর সঠিক সময়ে স্থাপন করা হোক, কিন্তু এটা অশুভ সময়।’‌ যদিও এর পেছনে কোনও কারণ স্পষ্টভাবে উল্লেখ করেননি তিনি।

মন্দিরের মডেল নিয়ে জনমত উত্তরপ্রদেশের অযোধ্যায় রাম মন্দির নির্মাণ ও ভূমি পুজোর প্রস্তুতি যখন তুঙ্গে সেই সময়ই শঙ্করাচার্যের মন্তব্য সামনে আসে। তিনি বলেন, ‘‌আমরা রামের ভক্তরা, রামের মন্দির যে কেউ তৈরি করলেই আমরা খুশি হব, কিন্তু তার জন্য সঠিক তিথি ও শুভ সময় বাছাই করা দরকার।

এর মধ্যে কোনও রাজনীতি থাকবে না। রাজনীতির কারণেই হিন্দুদের এত বছর অপেক্ষা করতে হয়েছে। মন্দিরটি জনগণের অর্থে তৈরি করা হচ্ছে তখন মন্দিরের মডেল নিয়ে জনতার কাছ থেকেও মত নেওয়া উচিত।’‌

এদিকে ১৬১ ফিটের উঁচু রাম মন্দির নির্মাণ করা হবে যা ১৯৮৮ সালে তৈরি হওয়া আসল রাম মন্দিরের মডেলের থেকে ২০ ফিট বেশি উঁচু বলে জানা গিয়েছে। এই মডেল নিয়েও শঙ্করাচার্য দাবি করেছেন যে, মন্দির কম্বোডিয়ার অঙ্কোরভাট এর মতো বিশাল আর চমৎকার হোক।

যদিও অযোধ্যার সন্তরা এই ইস্যুতে সোজাসুজি শঙ্করাচার্য সরস্বতী মহারাজকে শাস্ত্রের চ্যালেঞ্জ জানিয়েছেন। তাদের মতে, হনুমান চল্লিশা থেকে শুরু করে ঋকবেদ পর্যন্ত যদি শঙ্করাচার্য সরস্বতী মহারাজের সবকিছুর জ্ঞান থাকে, তাহলে এসে প্রমাণ করুক যে ৫ অগাস্ট ভূমি পূজো করা ভুল।