১৯শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ, শনিবার

সীমান্ত হত্যা বন্ধের দাবিতে একক পদযাত্রা বাংলাদেশী হানিফ

আপডেট: সেপ্টেম্বর ১৪, ২০২০

| নিজস্ব প্রতিবেদক

বন্ধুপ্রতিম প্রতিবেশি দেশ ভারত কর্তৃক বাংলাদেশ সীমান্তে অবৈধ হত্যা বন্ধের প্রতিবাদে প্রতীকী লাশ নিয়ে একক পদযাত্রা শুরু করেছেন হাফিন বাংলাদেশ (৩০) নামে যুবক। গত ১১ সেপ্টেম্বর শুক্রবার সকালে ঢাকা প্রেসক্লাবের সামনে থেকে এই প্রতিবাদী পদযাত্রা শুরু করেন তিনি। প্রথম দিন ১৫ কিলোমিটার পথ পায়ে হেটে গাবতলী ব্রিজের নিচে যাত্রা বিরতি করেন। পদযাত্রার ২য় ও ৩য় দিন সাভারে অবস্থান করেন তিনি। আজ সকালে সাভারের বাইপাইল থেকে ৪র্থ দিনের যাত্রা শুরু করেন তিনি এবং গাজিপুরের কালিয়াকৈর গিয়ে আজকের পদযাত্রা শেষ করবেন তিনি।

হানিফ বাংলাদেশী বলেন, ভারত আমাদের প্রতিবেশ ও বন্ধু রাষ্ট্র হয়েও বাংলাদেশ সীমান্তে পাখির মত মানুষ হত্যা বন্ধ করেনি। স্বাধীনতার ৫০ বছরে প্রায় ৩ হাজার মানুষকে হত্যা করেছে ভারতীয় বিএসএফ। বর্তমান ক্ষমতাসীন দলের ১২ বছরের শাসনামলেও ৫০০ এর অধিক বাংলাদেশীকে হত্যা করে ভারতীয় সীমান্তরক্ষী বাহিনী। দুর্বল পররাষ্ট্রনীতি ও ক্ষমতায় আঁকড়ে থাকার মোহতার কারণে পূর্বের ও বর্তমান শাসকগোষ্ঠীর কেউই সীমান্তে হত্যা বন্ধে কার্যকরী কোন পদক্ষেপ নিতে পারেনি বলেও মনে করেন তিনি।

তিনি আরো বলেন, সীমান্তে হত্যা বন্ধে গণ আন্দোলনের কোন বিকল্প নেই। যার উৎকৃষ্ট উদাহরণ হিসেব ভারতের বিরুদ্ধে নেপালের জনগণের গণ আন্দোলনের কথাও বলেন তিনি।

অনতিবিলম্বে কূটনীতিক তৎপরতা বৃদ্ধির মাধ্যমে সীমান্তে হত্যাকাণ্ড বন্ধ ও প্রতিবেশী দেশ হিসেবে এদেশের মানুষের অধিকার নিশ্চিত করার জন্য সরকারের প্রতি আহবান জ্যনান তিনি।