১০ই আগস্ট, ২০২০ ইং, সোমবার

স্বাস্থ্যমন্ত্রীর কুশপুত্তলিকা দাহ

আপডেট: জুলাই ২৬, ২০২০

| পিবিএন ডেস্ক

করোনা কালে স্বাস্থ্য খাতে ব্যাপক দুর্নীতির প্রতিবাদ ও স্বাস্থ্যমন্ত্রীর অপসারণের দাবিতে গাইবান্ধায় বিক্ষোভ মিছিল ও স্বাস্থ্য মন্ত্রীর প্রতীকী কুশপুত্তলিকা দাহ করেছে সিপিবি।

রবিবার (২৬ জুলাই) দুপুরে বাংলাদেশ কমিউনিস্ট পার্টি (সিপিবি) জেলার শাখার আয়োজনে শহরের আসাদুজ্জামান মার্কেট এলাকায় এ বিক্ষোভ মিছিল করে তারা।বিক্ষোভ শেষে স্বাস্থ্য মন্ত্রীর প্রতীকী কুশপুত্তলিকা আগুন দিয়ে পোরানো হয়।

এ সময় দেশের করোনা ভাইরাসের মহামারি কালে স্বাস্থ্য খাতে নানা দুর্নীতি তুলে ধরে বক্তব্য রাখেন জেলা কমিউনিস্ট পার্টির সভাপতি মিহির ঘোস, সাধারণ সম্পাদক মোস্তাফিজুর রহমান মুকুল ,কৃষক সমিতির জেলা সাধারণ সম্পাদক ছাদেকুল ইসলাম,তপন কুমার বর্মণ, প্রদীপ বর্মণ, যুব ইউনিয়নের নেতা রানু সরকারসহ অন্যরা।

বক্তারা বলেন,” করোনা মহামারীতে বিপর্যস্ত মানুষের জীবন। লক্ষ লক্ষ মানুষ আক্রান্ত হচ্ছে, বিনা চিকিৎসায় হাজারো মানুষ মারা যাচ্ছে। কিন্তু মানুষের জীবন বাঁচাতে সরকারের ন্যূনতম প্রস্তুতিও নেই। সরকার ব্যস্ত নিজেদের ব্যর্থতা ঢাকতে।

বিশেষ করে স্বাস্থ্য মন্ত্রনালায়ের ব্যর্থতা ও সমন্বয়হীনতা পাহাড় -সমান। এ মুহূর্তে সংক্রমণ প্রতিরোধে প্রয়োজন বেশি বেশি পরিমান টেস্ট করা। কিন্তু আমরা জানি ৪৩ টি জেলায় কোন পিসিআর মেশিন নেই। টেস্ট কিটের অভাবে পরীক্ষা বন্ধ থাকছে বিভিন্ন জেলায়। হাসপাতালগুলোতে নেই দক্ষ চিকিৎসক -নার্স-স্বাস্থ্যকর্মী।

হাসপাতাল গুলোতে নেই পর্যাপ্ত আইসিইউ বেড,ভেন্টিলেশন ব্যবস্থা ও কেন্দ্রীয় অক্সিজেন সরবরাহ ব্যবস্থা। অক্সিজেন সিলিন্ডার গ্যাসের সিন্ডিকেট গড়ে উঠেছে। মানুষের অসহায়ত্ব সকল মাত্রা ছাড়িয়ে গেছে। এই মহামারীর সময়েও থেমে নেই চিকিৎসা সামগ্রী নিয়ে ব্যবসা। নিম্নমানের মাস্ক- পিপিই সরবরাহ করে টাকা লুটে নিচ্ছে সরকার ঘনিষ্ঠ ব্যবসায়ীগোষ্ঠী।

দেশের চিকিৎসক -নার্স- স্বাস্থ্যকর্মীরা সুরক্ষা সরঞ্জামের অভাবে মারা যাচ্ছেন। সরকারী হিসেবে, গত ২২ জুন পর্যন্ত মারা গেছেন ৪২ জন ডাক্তার,১০ জন নার্স। আক্রান্ত ১১৯০ জন ডাক্তার ও ২৪১০ জন স্বাস্থ্যকর্মী। চিকিৎসক-নার্স-স্বাস্থ্যকর্মীরা যখন পিপিই-এর অভাবে সম্মুখযুদ্ধে মারা যাচ্ছেন, তখন বেক্সিমকো গ্রুপ ৬৫ লক্ষ পিস পিপিই ইউরোপ -আমেরিকায় রপ্তানি করে। এই হলো মুনাফাকেন্দ্রিক পুঁজিবাদী ব্যবস্থার আসল চিত্র।”

বক্তারা মানুষের জীবন নিয়ে ব্যবসাকারী সাহেদ-সাবরিনার পৃষ্ঠপোষক স্বাস্থ্যমন্ত্রীর অপসারণ ও বিনামূল্যে মাস্ক বিতরণ এবং চলমান গাইবান্ধায় বন্য ক্ষতিগ্রস্তদের মাঝে ত্রাণসামগ্রী বিতরণের দাবি জানান।